এ গেম অব থ্রোনস (আ সং অব আইস অ্যান্ড ফায়ার এর শেষ খন্ড) – জর্জ আর. আর. মার্টিন

›› অনুবাদ  ›› উপন্যাসের অংশ বিশেষ  

রূপান্তরঃ অনীশ দাস অপু

……..মেয়েটির দারুণ খিদে পেয়েছিল। আমরা দুজনে মিলে আড়াইটা মুরগি আর এক ফ্ল্যাগন মদ সাবাড় করে ফেলি কথা বলতে বলতেই । তখন আমার বয়স তেরাে, মদ খেয়ে টাল হয়ে গিয়েছিলাম। এরপরে যা মনে পড়ছে তা হলাে আমি মেয়েটিকে নিয়ে বিছানায় উঠে পড়ি। ও লজ্জা পাচ্ছিল। আমি আরও বেশি লজ্জা পাচ্ছিলাম। তবে জানি না কোথেকে সাহস খুঁজে পেলাম । আমি যখন তার কুমারীত্ব হরণ করলাম, সে কেঁদে উঠল, তারপর আমাকে চুমু খেয়ে ছােট্ট গানটি শােনাল। আমি সকাল না। হতেই তার প্রেমে পড়ে গেলাম।………

………..কীভাবে মরতে চাও, টাইউইনের পুত্র টিরিয়ন?’
আমার নিজের বিছানায়, পেট ভর্তি মদ আর বেশ্যার মুখে আমার লিঙ্গ ঢােকানাে অবস্থায় আশি বছর বয়সে আমি মরতে চাই।…….

…….. হ্রদ থেকে উঠে এল ডেনি শীতে কাঁপতে কাঁপতে। ফোটায় ফোঁটা জল ঝরছে গা থেকে। ওর পরিচারিকা ছুটে এল রােব নিয়ে। কিন্তু খাল ডােগাে হাতের ইশারায় তাকে সরে যেতে বলল। সে সপ্রশংস দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে ডেনির সুডৌল বুক আর পেটের বাকের দিকে।

ডেনি দেখল ড্রোগাের ঘােড়ার চামড়ার ট্রাউজার্স কোমরের নিচে ফুলে উঠেছে। সে ড্রোগাের কাছে গিয়ে ওর প্যান্ট খুলে দিল। বিশালদেহী খাল ডেনিকে কোমর ধরে তুলে ফেলল শূন্যে, যেন ও একটা শিশু। তার চুলের ঘন্টাগুলাে বেজে উঠল মিষ্টি সুরে।

ডেনি ড্রোগাের কাঁধ জড়িয়ে ধরল দু’হাতে, মুখ গুঁজে দিল ঘাড়ে । আর তখন ওর শরীরে প্রবেশ করল খাল। পরপর দ্রুত তিনটা ধাক্কা মারল সে। স্ট্যালিয়ন যে দাপিয়ে বেড়াবে পৃথিবী’ ফিসফিসিয়ে বলল ডেনিকে। তার হাতে ঘােড়ার রক্তের গন্ধ। ডেনির গলায় জোরে কামড় দিল খাল চরম চরম মুহূর্তে। তারপর ওকে নামিয়ে দিল মাটিতে।……..

…….বাবা চলে যাবার পর দীর্ঘক্ষণ ঘরে বসে রইল টিরিয়ন। অবশেষে সিড়ি বেয়ে নিজের ছােট কামরায় ফিরে এলাে । পালকের বিছানার কোনায় বসল ও। শেই ঘুমের ঘােরে বিড়বিড় করতে করতে ওর দিকে চেপে এলাে। টিরিয়ন কম্বলের নিচে হাত ঢুকিয়ে তার বুকে আস্তে করে চাপ দিতেই চোখ খুলে তাকাল মেয়েটা।

‘মি লর্ড, ঘুমঘুম হাসির সাথে বলল শেই। মেয়েটার স্তনের বোটা শক্ত হয়ে গেছে। টিরিয়ন তাকে চুমু খেল। আমি তােমাকে কিংস ল্যান্ডিংয়ে নিয়ে যাব, সােনা, ফিসফিস করল সে।…..

…..ডেনির জামায় আগুন ধরে গেল। সে ওটা খুলে ছুড়ে ফেলে দিল। আগুনে এখন উন্মুক্ত তার বুক। লাল এবং ফোলা স্তন দিয়ে দুধের নহর কেন বইতে শুরু করল।…….সাদা সােনালি রঙের বাচ্চা ড্রাগনটা ডেনির বাম স্তন চুষে খাচ্ছে। সবুজ ব্রোঞ্জ রঙেরটা ব্যস্ত ডান দিকের বুক নিয়ে। ও ওদেরকে জড়িয়ে রেখেছে।……

Please follow and like us:

Leave a Reply